CNG & Auto rickshaw Price in Bangladesh

সি এন জি গ্যাসের দাম ও আজকের নতুন গ্যাস সিলিন্ডারের দাম

সর্বশেষ জানা তথ্যমতে, কাঁচামালের দাম ৫০ থেকে ৯২ ছাড়িয়ে ১৫০ মার্কিন ডলার পর্যন্ত বেড়ে যাওয়ার কারণে বেক্সিমকো, টোটাল, যমুনা, ওমেরা, বিএম সব গ্যাস কোম্পানি গ্যাসের দাম দফায় দফায় বাড়িয়েছে। এক্ষেত্রে এলপি গ্যাসের দাম ১০০ টাকা থেকে ৩৫০ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়েছে।
প্রতি ১২কেজি থেকে ১৫ কেজি সিলিন্ডারের দাম ৮০ টাকা থেকে ১২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। তবে বসুন্ধরা গ্যাসের দাম বাড়ায় নি। এছাড়াও, ২০২১ সালের শুরুর দিক হতে সি এন জি গ্যাসের দাম তো কেবল বাড়িয়েই চলেছে।
বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) এর উচিৎ গ্যাসের উর্ধমুখি দাম নিয়ন্ত্রণ করা।

বহু প্রাচীনকালে শত শত মিলিয়ন বছর আগের প্রাণী এবং উদ্ভিদদেহের ধ্বংসাবশেষ মাটির নিচে জীবাশ্ম রূপে পাওয়া গেছে। কয়লা, প্রাকৃতিক গ্যাস ও পেট্রোলিয়াম যেগুলাে আমরা জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করি রূপে মাটির নিচ থেকে পাওয়া যায়। এগুলো জীবাশ্ম জ্বালানি নামে পরিচিত।

সিলিন্ডার গ্যাসের দাম ২০২১ বাংলাদেশ

২০২১ সালে বাংলাদেশে সিলিন্ডার সহ গ্যাসের দাম কত তা জানতে এ আর্টিকেলটি পুরোটা পড়ুন।

সরকারি বিধিতে এলপি গ্যাস (১২.৫০ কেজি প্রতি সিলিন্ডার) এর দাম ৬০০.০০/সিলিন্ডার।

শত শত মিলিয়ন বছর আগে এ পৃথিবীর ইতিহাসে বিভিন্ন সময় ছিল যখন এ পৃথিবীজুড়ে ছিল ঘন বনজঙ্গল, নিচু জলাভূমি আর সমুদ্র যেখানে ছিল জলজ উদ্ভিদ, ফাইটোপ্লাংকট (পানিতে বসবাসকারী এক ধরনের শৈবাল), জুওপ্লাংকটন (পানিতে বসবাসকারী এক ধরনের ছােট প্রাণী)। বিভিন্ন সময় বড় বড় প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে এই ধরনের উদ্ভিদ, প্রাণী মাটিচাপা পড়ে যায়। সময়ের বিবর্তনে তার উপর আরও মাটি পড়ে। ধীরে ধীরে এগুলাে মাটির গভীর থেকে গভীরে চলে যেতে থাকে। ফলে এর উপর চাপ ও তাপমাত্রা বাড়তে থাকে। বায়ুর অনুপস্থিতিতে এগুলাের ক্ষয় ও রাসায়নিক পরিবর্তন ঘটতে থাকে। শত শত মিলিয়ন বছর ধরে তাপ, চাপ আর রাসায়নিক পরিবর্তনের কারণে বড় বড় উদ্ভিদ ও প্রাণী থেকে শুরু করে ক্ষুদ্রতম উদ্ভিদ ও প্রাণী পর্যন্ত সকল ধরনের উদ্ভিদ ও প্রাণী থেকে জীবাশ্ম জ্বালানির সৃষ্টি হয়েছে।

বড় বড় উদ্ভিদ থেকে কয়লা আর ফাইটোপ্লাংকটন, জুওপ্লাংকটন ও মৃত প্রাণীর দেহাবশেষ থেকে পেট্রোলিয়ামের সৃষ্টি হয়েছে। এ পরিবর্তন অব্যাহত থাকায় পেট্রোলিয়াম আরও পরিবর্তিত হয়ে প্রাকৃতিক গ্যাস সৃষ্টি হয়। তাই কোথাও কোথাও পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস এক সাথেই থাকে। যেমন: বংলাদেশের হরিপুর গ্যাসক্ষেত্রে প্রাকৃতিক গ্যাসের সাথে
পেট্রোলিয়ামও পাওয়া গেছে। এই জীবাশ্ম জ্বালানির মূল উৎস জীবদেহ, তাই এ সকল জ্বালানির মূল উপাদান কার্বন ও কার্বনের যৌগ।

সি এন জি গ্যাসের দাম

বাংলাদেশের বিভিন্ন গ্যাস কোম্পানি:
  • বসুন্ধরা গ্যাস লিমিটেড
  • বিএম এনার্জি (বাংলাদেশ) লিমিটেড
  • বেক্সিমকো এলপি গ্যাস
  • ওমেরা গ্যাস
  • যমুনা
  • টোটাল

আজকের নতুন গ্যাস সিলিন্ডারের দাম কত ২০২১ বাংলাদেশ

CNG gas price in Bangladesh || সি এন জি গ্যাসের দাম

প্রাকৃতিক গ্যাস (Natural Gas):
প্রাকৃতিক গ্যাসের প্রধান উপাদান হলাে মিথেন (৪০%)। এছাড়া প্রাকৃতিক গ্যাসে ইথেন (7%), প্রােপেন (6%), বিউটেন ও আইসােবিউটেন (4%) এবং পেন্টেন (3%) থাকে। কিন্তু বাংলাদেশে এ পর্যন্ত যে প্রাকৃতিক গ্যাস পাওয়া গেছে তাতে 99.99% মিথেন থাকে। আর এই মিথেন গ্যাসই হচ্ছে সি এন জি গ্যাস।


ডিজেল এর দাম:
৬৫.০০ (টাকা/লিটার)
২৪/০৪/২০১৬


কেরোসিন এর দাম:
৬৫.০০ (টাকা/লিটার)
২৪/০৪/২০১৬

৩.

পেট্রোল এর দাম:
৮৬.০০ (টাকা/লিটার)
২৪/০৪/২০১৬

Octane price in Bangladesh 2020-21:

অকটেন দাম ৮৯.০০ (টাকা/লিটার)

পেট্রোলিয়ামের উপাদানসমূহ ও তাদের পৃথকীকরণ:

পেট্রোলিয়াম সাধারণত 5000 ফুট বা তার চেয়েও গভীরে শিলা স্তরের মধ্যে পাওয়া যায়।
পেট্রোলিয়ামের সাথে অনেক সময় প্রাকৃতিক গ্যাস থাকে যা পেট্রোলিয়ামের উপরিভাগে চাপ প্রয়ােগ করে। কূপ খনন করা হলে এই প্রাকৃতিক গ্যাস পেট্রোলিয়ামকে ভূ-পৃষ্ঠের উপরিভাগে উঠে আসতে সাহায্য করে। যে পেট্রোলিয়াম খনি থেকে সরাসরি পাওয়া যায় তাকে অপরিশােধিত তেল (Crude oil) বা পেট্রোলিয়াম বলে। এই অপরিশােধিত তেল অস্বচ্ছ, কখনাে কখনাে সালফারের কিছু কিছু যৌগ থাকার কারণে দুর্গন্ধযুক্ত হয়। এই পেট্রোলিয়াম মূলত বিভিন্ন হাইড্রোকার্বনের মিশ্রণ এবং সরাসরি ব্যবহার উপযােগী নয়। এই অপরিশােধিত তেল আংশিক পাতন পদ্ধতিতে স্ফুটনাঙ্কের উপর ভিত্তি করে পৃথক করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button